Git

Git branching

গিট ব্রাঞ্চিং গিটের একটা কুল ফিচার । এটা নিয়ে বলার অাগে অামি একটা গল্প বলে নেই ।

অামার এক বন্ধু অনেক স্বাভাবিক লাইফ পার করতেছিল । তো কি এক কারণে তার মনে হতে লাগলো তার একজন গালফ্রান্স দরকার । তো সে বেশ কিছুদিন একজনের পেছনে ঘুরাঘুরির পর শেষমেষ কাঁঠালের অাঠায় পা রাখলো । কিছুদিন বেশ ফুরফুরে গেল তার । জীবন চকচক করতেছিল । বাট কিছুদিন যাবার পর সে টের পেল এ অাঠা ভালো অাঠা নয় অামি মুক্তি চাই । কিন্তু কথায় অাছে “পিরিতী কা্ঁঠালের অাঠা লাগলে পরে ছাড়েনা” । তো যাই হোক সে ভাবতেছিল ইসস লাইফে যদি একটা ডিফরেন্ট টাইমলাইন বানানো যেত যে সেখানে সব ঠিকঠাক থাকলে মেইন টাইমলাইনে এ্যড করবো নাহলে জাস্ট রিমুভ করে দিব 🙂 ।

জীবন অাপনাকে এইরকম ফিচার না দিলেও গিট অাপনাকে কিন্তু এই ফিচার দেবে । এখানে চাইলেই একটা নতুন টাইমলাইন বানিয়ে সেখানে কাজ সেরে মেইন টাইম লাইনে এ্যড করা যায় অাবার না চাইলে ডিলেট ও করা যায়।
ধরা যাক অামাদের মেইন টাইমলাইন master branch
এখান থেকে নতুন features/facebook-login টাইমলাইন বানাতে চাইলে

master branch এর সব ফাইল/মডিফিকেশন   features/facebook-login  branch এ থাকবে । এই ব্রাঞ্চে কাজ হয়ে গেলে মেইন টাইম লাইনে এটাকে মার্জ করতে হবে ।

এজন্য master  ব্রাঞ্চে সুইচ করে (ডিসায়ারড)  ব্রাঞ্চকে মার্জ করলে  features/facebook-login  ব্রাঞ্চের যাবতীয় মডিফিকেশন master ব্রাঞ্চে চলে অাসবে

features/facebook-login  ব্রাঞ্চকে ডিলেট করতে চাইলে

মেইন ব্রাঞ্চে কোন ফিচার/বাগ ফিক্স এ্যড করতে যেয়ে নতুন ইস্যু অ্যারাইস করা খুবই স্বাভাবিক এজন্য বেস্ট প্রাকটিস হলো git branch .
এই হলো মোটামুটি git branching এর প্রাথমিক ধারনা এবং অামার লেখা প্রথম নোভিস ব্লগ 🙂

Share this post
2 comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *